জাতীয়

ইতিহাসের আরো একটি কালো দিন।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের আরেকটি কালো অধ্যায় তেশরা নভেম্বরের কারাভ্যন্তরে জাতীয় চার নেতার হত্যাকাণ্ড। ১৯৭৫ এ জাতিরপিতাকে স্বপরিবারে হত্যার পর তার ঘনিষ্ঠ চার সহচরকে নির্মমভাবে হত্যা করে খুনি চক্র। নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, আনুগত্য আর দেশপ্রেমের প্রশ্নে আপোষ করেননি তারা। দেশি আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রে বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়িয়ে দিতেই হত্যা করা হয় চার নেতাকে।
মুক্তিযুদ্ধে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ, দেশ গঠনে বঙ্গবন্ধুর চার সহচর জাতীয় নেতা তাজউদ্দিন আহমেদ, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এ এইচ এম কামরুজ্জামান। মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়ে স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনা একেকজন কারিগর তখন ধ্বংস্তস্তুপের মধ্যেই শেখ মুজিবের সোনার বাংলা গড়ার কাজে নিয়োজিত।
বারুদে পোড়া শস্যদানা থেকে স্বাধীন বাংলায় জনতার মুখে হাসি ফোটানোর ব্রত নিয়েই এগিয়ে চলা। স্বাধীনতাবিরোধী চক্রের ষড়যন্ত্রে জাতির পিতাকে হত্যার পরে সেই পথচলাও স্থবির হয়ে যায়। সম্ভাবনার সব আদর্শ ধ্বংশ করতে বিশ্বাসঘাতক খোন্দকার মোশতাকের অন্ধ লোভ নিশ্চিহ্ন করেদিতে চায় সব কিছু।
তেশরা নভেম্বর মধ্যরাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে ঢুকে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে ঘাতকরা। জাতির জন্য এই আত্মত্যাগ সব প্রজন্মের জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকুক, স্বজনহারা পরিবারের এটুকুই চাওয়া। শহীদ তাজউদদ্দিন আহমেদের বড় মেয়ে শারিমন আহমেদ রিপি বলেন, ১৫ই আগস্টের পর মোশতাক কেবিনেটে যাতে কেউ না যায় আব্বু সেই চেষ্টাটাই করেছিলেন। যখন সবাই যোগ দিলেন তখন তাঁর মন খুব খারাপ হয়ে গেলো। তারপর তিনি বাইরে খবর পাঠান আন্দোলন অব্যাহত রাখতে।
তিনি আরো বলেন, এরকম মর্মান্তিক ঘটনা যেন আর না আসে। কারণ তারা হলেন ক্ষণজন্মা মানুষ। এই নেতৃত্ব সৃষ্ট হতে শত বছর লাগে। জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা নিশ্চয়ন জাতির জন্য বিশাল ধাক্কা।
ক্যপ্টেন মনসুর আলীর ছেলে মো. নাসিম বলেন, জাতীয় চার নেতা জীব দিয়ে প্রমাণ করে গেছেন বঙ্গবন্ধুর প্রতি তাদের আনুগত্য। ক্ষমতার কাছে, খন্দকার মোশতাকের কাছে মাথানত করেননি তারা।
বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে দেশগঠনে নিবেদিত জাতীয় নেতাদের আদর্শ অনুসরণ করার তাগিদ স্বজনদের।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker