জাতীয়

মতিঝিলের চার ক্লাবে অভিযান: ক্যাসিনো সরঞ্জাম, টাকা ও মাদক জব্দ।

এবার এক সঙ্গে মতিঝল ক্লাব পাড়ার চার ক্লাবে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। আরামবাগ, মোহামেডান, ভিক্টোরিয়া ও দিলকুশা ক্লাবে অভিযান চালানো হয়।পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনারের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। ক্লাবগুলো থেকে টাকা, মদ, সিসা ও ক্যাসিনো-জুয়ার সামগ্রী জব্দ করা হয়েছে।ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো থাকার প্রাথমিক অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চলছে।পুলিশের মতিঝিল বিভাগের অতিরিক্ত উপ কমিশনার শিবলী নোমান বলেন, দুপুরে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে একযোগে এই অভিযান শুরু হয়। গত সপ্তাহে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে যুবলীগ নেতাদের নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর ঢাকায় যুবলীগ নেতাদের ‘৬০টি ক্যাসিনো চালানোর’ খবর আসে সংবাদমাধ্যমে।এ নিয়ে আলোচনার মধ্যেই গত বুধবার বিকালে গুলশান ২ নম্বরের ৫৯ নম্বর সড়কে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া বাসা এবং ফকিরাপুল ইয়ংমেনস ক্লাবে একযোগে অভিযান চালানো হয়। খালেদ ইয়ংমেন্স ক্লাবের সভাপতি।ক্লাবে ক্যাসিনো বসিয়ে জুয়ার আড্ডা চালানোর ডিজিটাল বোর্ডসহ বহু সরঞ্জাম পাওয়া যায়। সেখান থেকে ২৪ লাখ টাকাও উদ্ধার করা হয়। আর গুলশানের বাসা থেকে খালেদকে গ্রেপ্তারের পর তার বাসায় ৫৮৫টি ইয়াবা, বিপুল পরিমাণ বিদেশি মুদ্রা এবং অবৈধ অস্ত্র পাওয়ার কথা জানায় র্যাব। ফকিরাপুল ইয়ংমেনস ক্লাবের পাশাপাশি ওই এলাকার ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, বঙ্গবন্ধু এভিনিউর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র এবং বনানীর আহমেদ টাওয়ারে গড়ে তোলা একটি ক্যাসিনোতেও অভিযান চালানো হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker