জাতীয়

বঙ্গবন্ধু উন্নয়ন প্রকল্পে দেশি পরামর্শক রাখার নির্দেশ দিয়েছেন -অর্থমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উন্নয়ন প্রকল্পে বিদেশি পরামর্শকের পাশাপাশি দেশীয় পরামর্শক রাখার ধারণা পোষণ ও নির্দেশনা দিয়েছিলেন- এমন তথ্য জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

জাতির পিতার ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার  রাজধানীতে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী। এনইসি অডিটরিয়ামে অর্থনেতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ।বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণা করে অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রকল্পে পরামর্শক যৌথভাবে থাকবে এই ধারণাটি বঙ্গবন্ধু পোষণ করতেন। দেশি কনসালটেন্ট তৈরি করতে হবে,এটাই ছিল তার উদ্দেশ্য। কারণ তিনি জাতিকে ভালোবাসতেন।নিজে বেশ কয়েকবার বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পেয়েছেন অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল। সে কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘চারবার বঙ্গবন্ধুকে খুব কাছে থেকে দেখার সুযোগ হয়েছে আমার। এক দিনের কথা বলি। আমরা অপেক্ষা করছিলাম বঙ্গবন্ধুর জন্য। সেখানে একজন সরকারি কর্মকর্তার হাতে একটি ফাইল। বঙ্গবন্ধু এসেই বললেন,  কী নিয়ে আসছেন? ওই কর্মকর্তা বললেন, বিশ্বব্যাংকের একটি ফাইল নিয়ে আসছি। ফাইলে বিশ্বব্যাংক একটি কনসালটেন্টর নাম উল্লেখ করেছে। তারা ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং স্টাডি করবে। বঙ্গবন্ধু জানতে চাইলেন বিশ্বব্যাংক কার নাম বলেছে। ওই কর্মকর্তা জানালেন, একটা জার্মান কোম্পানির নাম বলা হয়েছে।’কোম্পানিটির নাম এগ্রো প্রোগ্রেস জেএমবিএইচ। সে সময় দেশে রেশন কার্ড ছিল। প্রতি সের গম বা চালের জন্য কত টাকা দাম দেওয়া হবে, সেটা নির্ধারণ করার জন্য এই প্রকল্পটি নেয়া হয়েছিল। সেটির নাম ছিল ‘ফুড প্রকিউরমেন্ট রেশনিং অ্যান্ড ডেস্ট্রিবিউশন’।অর্থমন্ত্রী বলেন, `বঙ্গবন্ধু সাথে সাথে না বলে দিলেন। বিশ্বব্যাংক একটি কনসালটেন্টের নাম দেবে, এটা তো মানতে পারি না। এটি আমাদের প্রকল্প। তারা একটি কনসালটেন্ট দিলে আমরা আরেকটি কানসালটেন্ট দেব। একটি কনসালটেন্ট যে নাম দিয়েছে, সে তো কাজ নাও করতে পারে।’`প্রকল্পে আমাদের দেশীয় কনসালটেন্ট দিতে হবে। যৌথভাবে থাকবে এই ধারণাটি বঙ্গবন্ধু পোষণ করতেন।  দেশি কনসালটেন্ট তৈরি করতে হবে, এই ধারণাটি বঙ্গবন্ধু পোষণ করতেন।’অর্থমন্ত্রী বলেন, `বঙ্গবন্ধু হলেন সেই ব্যক্তি যিনি সব কাজের অনুপ্র্রেরণা। বঙ্গবন্ধু হলেন আমাদের চেতনার বাতিঘর। বঙ্গবন্ধু হলেন সেই ব্যক্তি ‍যিনি এই বাঙালি জাতির জন্য স্বপ্ন দেখতেন। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু নাই। যত দিন পৃথিবীতে সূর্য উদিত হবে, যত দিন বিশ্বব্রহ্মাণে একজন বাঙালিও বেঁচে থাকবে, তত দিন বঙ্গবন্ধু আমাদের মাঝে থাকবেন সূর্যের মতো।’আলোচনা সভায় অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব মনোয়ার আহমেদ বলেন, ‘আমাদের দায়িত্ব অনেক বড়। আমাদের দেশের স্বার্থে যেসব অর্থ আমরা দেশের বাইরে থেকে নিয়ে আসি, সেটি যেন সহনশীল হয়, সুদ যেন মাত্রার ভেতরে থাকে এবং সেটি যেন দেশের উন্নয়নে প্রকৃত অর্থেই কাজে লাগে। সেটি সমঝোতার সময় আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker