আন্তর্জাতিক

যুক্তরাজ্যের নতুন মন্ত্রিসভায় নারীদের জয় জয়কার

যুক্তরাজ্যের নব নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী স্যার কিয়ার স্টারমার, ইতোমধ্যে মন্ত্রীসভার জন্য ২০ জন মন্ত্রী বেছে নিয়ে তাঁদের দায়িত্ব বণ্টন করে দিয়েছেন। খবর: বিবিসি।

বিবিসি জানায়, মন্ত্রীসভায় গুরুত্বপূর্ণ অর্থমন্ত্রী (চ্যান্সেলর অব একচেকার) পদসহ রেকর্ড ১১টি পদে নারীদের বেছে নিয়েছেন ব্রিটিশ নতুন প্রধানমন্ত্রী।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের উপ-প্রধানমন্ত্রী করা হয়েছে অ্যাশটন-আন্ডার-লিনের এমপি অ্যাঞ্জেলা রেইনাহকে। বেশ গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীদের গুরুত্ব দিয়েছেন স্টারমার।

যুক্তরাজ্যের নতুন মন্ত্রিসভায় সবচেয়ে বড় চমকের নাম র‌্যাচেল রিভস। দেশটির প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনি। তাকে দেশটির চ্যান্সেলর অব দ্য এক্সচেকার (রাজকোষের চ্যান্সেলর) বা অর্থমন্ত্রী করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ৮০০ বছরের ইতিহাসে ৪৫ বছর বয়সী রিভসই প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী। এটি যুক্তরাজ্য সরকারের তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ পদ।

স্টারমারের মন্ত্রিসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন গায়ানিজ বংশোদ্ভূত ডেভিড লামি। এছাড়া লেবার পার্টির অন্যতম শীর্ষ পদধারী নারী ৫৫ বছর বয়সী ইয়েভেত্তে কুপার দেশটির নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন। অভিবাসন নীতির যেসব কার্যক্রম এখনো ঝুলে আছে সেগুলো নিয়ে কাজ করবেন তিনি।

এবার ব্রিটেন সরকারের নতুন শিক্ষামন্ত্রী হয়েছেন ৪০ বছর বয়সী নারী ব্রিজেট ফিলিপসন (৪০)। তিনি স্টারমারের খুবই ঘনিষ্ঠ।

নতুন মন্ত্রিসভায় এবার বিচারমন্ত্রী করা হয়েছে শাবানা মাহমুদকে। ৪৩ বছর বয়সী তুখোড় এই আইনজীবী অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে রাজনীতিতে এসেছেন। সাবেক কনজারভেটিভ নেত্রী লিজ ট্রাসের পর তিনিই দ্বিতীয় নারী হিসেবে এই দায়িত্ব পেলেন।

অন্যদিকে শ্রম এবং কারামন্ত্রী হয়েছেন লিজ কেনডাল। তিনি বলেছেন, লেবার পার্টি আরও ৮ হাজার ৫শ মানসিক স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগ করবে। একই সঙ্গে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, অসুস্থতা সংক্রান্ত সুবিধা বিল শ্রম আইনের অধীনে পড়বে।

মন্ত্রিসভায় পরিবহনমন্ত্রীর পদ পেয়েছেন একজন নারী, লুইস হেইঘ। সব বেসরকারি রেল অপারেটিং কোম্পানিগুলো ধীরে ধীরে গ্রেট ব্রিটিশ রেলওয়ের আওতায় চলে আসবে বলে জানিয়েছেন ৩৬ বছর বয়সী হেইঘ। আগামী চার বছরের মধ্যে এ সংক্রান্ত সব চুক্তি শেষ হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ওয়েলস বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন ৫৭ বছর বয়সী জো স্টিভেনস। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, ওয়েলস এবং যুক্তরাজ্য সরকারের মধ্যে একটি ভালো সম্পর্কের জন্য কাজ করে যাবেন।

লিসা ন্যান্ডিকে যুক্তরাজ্য সরকারের সংস্কৃতি বিষয়কমন্ত্রী করা হয়েছে। এর আগে ৪৪ বছর বয়সী নারী লিসা আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ছায়া মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমন্সের নেতা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন লুসি পাওয়েল। ম্যানচেস্টার সেন্ট্রাল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ৪৯ বছর বয়সী এই নারী।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ হাউজ অব লর্ডসের নেতা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অ্যাঞ্জেলা লেডি স্মিথ (৬৫)। তিনি ১৪ বছর ধরে লর্ডসের সদস্য।

যুক্তরাজ্যে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পার্লামেন্ট নির্বাচনে ৪১২টি আসনে জয় পেয়েছে লেবার পার্টি। কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১২১টি আসন। সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য কোনো দলের প্রয়োজন হয় ৩২৬ আসন। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে যুক্তরাজ্যে টানা ১৪ বছর পর ক্ষমতা থেকে সরে গেল কনজারভেটিভ পার্টি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button