আন্তর্জাতিক

হোয়াইট হাউসের কাছে গাজা যুদ্ধবিরোধী ‘রেড লাইন’ বিক্ষোভ

হোয়াইট হাউসের কাছে শনিবার হাজার হাজার লোক গাজায় চলমান যুদ্ধের বিরুদ্ধে ‘রেড লাইন’ বিক্ষোভ করেছে।

তারা হামাসের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের রক্তক্ষয়ী হামলার বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সহনশীলতা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। খবর: ভয়েস অব আমেরিকা, এনবিসি নিউজ।

বিক্ষোভকারীরা ইসরায়েলির বাহিনীর হাতে নিহত ফিলিস্তিনীদের নাম লেখা দীর্ঘ ব্যানার বহন করছিল।

এদিকে ইসরায়েল গাজা যুদ্ধে দ্বিমুখো নীতির জন্যে সমালোচিত হচ্ছেন বাইডেন।

গত মে মাসে হোয়াইট হাউস বলেছিল, রাফায় ইসরায়েলি হামলা ‘রেড লাইন’ বা চূড়ান্ত সীমা অতিক্রম করেনি।এর দুই মাস আগে বাইডেন রাফায় ‘রেড লাইন’ অতিক্রম না করতে ইসায়েলকে সতর্ক করেছিল।

ভার্জিনিয়ার ২৫ বছর বয়সী বিক্ষোভকারী জায়েদ মাহদাবি বলেছেন, “আমি বাইডেনের কোন কথাই আর বিশ্বাস করি না। বাইডেনের ‘রেড লাইন’ এর বিষয়টি তার ভন্ডামি ও কাপুরুষতা।”
নার্সিং সহকারী তালা ম্যাককিনি(২৫) বলেছেন, “আমরা সবাই আশা করি এটি শিগগীরই বন্ধ হয়ে যাবে। তবে স্পষ্টত আমাদ্রে প্রেসিডেন্ট দেশের সাথে যেসব কথা বলেছেন তা মনে চলছেন না। এটা আপত্তিজনক।”

বিক্ষোভে অংশ নেয়া সকলেই প্রায় লাল পোশাক পরেছিল। তাদের হাতে ছিল ফিলিস্তিনী পতাকা। তারা বলছিল, “বাইডেনের ‘রেড লাইন’ মিথ্যা” এবং “শিশুদের ওপর বোমা হামলা চালানো আত্মরক্ষা নয়”।

এদিকে এই বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে হোয়াইট হাউসে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর পাঁচমাস বাকী। নির্বাচনে বাইডেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি হচ্ছেন। মুসলিম ও তরুণ ভোটারদের কারণে চাপে রয়েছেন বাইডেন।

তাই এবারের মার্কিন নির্বাচনকে গণতন্ত্রের অগ্নিপরীক্ষা হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকেরা।
ম্যাককিনি বলেন, “এটি খুবই হতাশাজনক যে আমাদের এমন একজন প্রেসিডেন্ট যিনি কথা রাখেন না। আমি তৃতীয় পক্ষকে ভোট দেবো”।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button