জাতীয়

প্রকাশ্যে ভোট দেয়ায় নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন সংসদ সদস্য হাফিজের

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ার ঘটনায় নির্বাচন কমিশনে হাজির হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন বরিশাল-৬ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল হাফিজ মল্লিক।

আজ বুধবার (১৫ মে) দুপুরে ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ জানান, সংসদ সদস্য হাফিজ মল্লিক, নির্বাচন কমিশনে হাজির হয়ে এই ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরে তা আমলে নিয়ে তাকে দায়মুক্তি দেয় কমিশন।

শুনানি শেষে বেরিয়ে এসে এমপি হাফিজ মল্লিক সাংবাদিকদের বলেন, ‘গোপন কক্ষে যাওয়ার কাজটা আমি দাঁড়িয়ে করেছিলাম। লাস্ট মোমেন্টে ঠিক ৪টার কয়েক মিনিট আগে পৌঁছেছি। কেউ ছিল না সেখানে। খুব তাড়াতাড়ি করে ব্যালট নিয়ে ড্রপ করেছি। কাকে ভোট দিয়েছি কেউ দেখে নাই।’

বরিশাল-৬ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘আমার মনে হয় না আমি বেশি বড় ভুল করছি। বিধির কিছুটা লঙ্ঘন এইটা সত্য। এখন কমিশনের সিদ্ধান্ত তাদের হাতে। আমি দুঃখ প্রকাশ করেছি।’

এদিকে, কমিশনের সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে কথা বলেন, ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘উনি ভুল স্বীকার করেছেন, লজ্জিত হয়েছেন। নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ করবেন না বলে জানিয়েছেন। তার ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি কমিশন আমলে নিয়ে অব্যাহতি দিয়েছে।’

এর আগে, গত সোমবার (১৩ মে) নির্বাচন কমিশনের উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত চিটিতে হাফিজ মল্লিককে বুধবার (১৫ মে) দুপুর ১২টায় নির্বাচন কমিশনে তলব করা হয়।

গত ৮ মে অনুষ্ঠেয় বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন ৪৭ নম্বর মঙ্গলসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোটকেন্দ্রে প্রকাশ্যে ভোট দেন হাফিজ মল্লিক, যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছবিসহ প্রকাশিত হয়েছে।

এর আগে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ায় তলব করা হয়েছিল ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খানকে। পরে তিনি ইসিতে এসে বিষয়টি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button