আন্তর্জাতিক

গাজায় ইসরায়েলী হামলায় বেশ কয়েকজন ত্রাণকর্মী নিহত

অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলী হামলায় বেশ কয়েকজন ত্রাণকর্মী নিহত হয়েছে। ত্রাণ সংস্থাটি এই খবর জানায়।

সোমবার গাজায় খাদ্য সরবরাহ করতে গিয়ে এরা প্রাণ হারায়। নিহতদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ান, পোলিশ, যুক্তরাজ্য এবং ফিলিস্তিনি সহায়তা কর্মী রয়েছে। গাজায় হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই কথা জানিয়েছে।

ওয়ার্ল্ড সেন্ট্রাল কিচেন নামের এনজিও’র প্রতিষ্ঠাতা শেফ জোসে আন্দ্রেস বলেছেন, আজ গাজায় ইসরায়েলী সেনাবাহিনীর হামলায় ওয়ার্ল্ড সেন্ট্রাল কিচেন তার কিছু ভাই ও বোনদের হারিয়েছে।

গাজায় ‘নির্বিচার হত্যা’ বন্ধ করার জন্য ইসরায়েলি বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ওয়াল্ড সেন্ট্রাল কিচেনের (ডব্লিউসিকে) প্রতিষ্ঠাতা জোসে আন্দ্রেস।

যুক্তরাষ্ট্রে সদরদপ্তর কেন্দ্রিক এই সংস্থা এই ঘটনাকে ভয়াবহ বলে বর্ণনা করেছে। একইসঙ্গে বলেছে, মানবিক ত্রাণ কর্মী ও বেসামরিক লোকজনকে কখনই টার্গেট করা উচিত নয়।
গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিদেশী ৪ ত্রাণকর্মী ও তাদের গাড়ি চালকের মরদেহ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

৪ বিদেশী নাগরিকের ৩ জন ব্রিটিশ, অষ্ট্রেলিয়ান ও পোলিশ। একজনের পরিচয় জানা যায়নি।

ইসরায়েলী সেনাবাহিনী বলেছে, তারা মর্মান্তিক এই ঘটনার বিষয়টি বুঝে নিতে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পর্যালোচনা করে যাচ্ছে। একইসঙ্গে তারা ফিলিস্তিনীদের ত্রাণ সরবরাহে ডব্লিওসিকে’র সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সাইপ্রাস থেকে নৌকার মাধ্যমে যে দু’টি এনজিও গাজায় ত্রাণ সরবরাহের কাজ করে যাচ্ছে ডব্লিওসি’কে তার একটি। এছাড়া গাজায় অস্থায়ী জেটি নির্মাণের কাজের সাথেও এনজিওটি জড়িত।

গত প্রায় ৬ মাসের যুদ্ধে গাজায় মানবিক সংকট তীব্ররূপ নিয়েছে। অঞ্চলটিতে দুর্ভিক্ষ আসন্ন বলে জাতিসংঘ বারবার সতর্ক করে আসছে।

এই প্রেক্ষিতে অবরুদ্ধ গাজায় ত্রাণ সরবরাহ জোরদারে ব্যাপক চাপের মুখে রয়েছে ইসরায়েল। খবর: আল-জাজিরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button