জেলার খবর

সুন্দবনসংলগ্ন গ্রামে বাঘ, বনবিভাগের মাইকিং

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের সুন্দরবনসংলগ্ন শরণখোলার লোকালয়ে আবার বাঘের পায়ের ছাপ দেখা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার সোনাতলা গ্রামের হারুণ ভদ্দর এবং আবু ভদ্দরের বাড়ির বাগানে ও পুকুরপাড়ে বাঘের পায়ের ছাপ দেখা যায়।

স্থানীয়দের ধারণা বুধবার রাতের কোনো এক সময় সুন্দরবনের ভোলা নদী পার হয়ে দু’টি বাঘ লোকালয়ে প্রবেশ করেছে। এ ঘটনায় ওই এলাকার মানুষ মধ্যে উৎকণ্ঠিত হয়ে পড়েছেন।

এদিকে, বাঘ আসার খবর পেয়ে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সোনাতলা গ্রামে মাইকিং করেছে বনবিভাগ। বাঘটির পায়ের ছাপ পযবেক্ষণ করছেন বনবিভাগের লোকজন।

সুন্দরবন পূর্ব বনবিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের ভোলা ফরেস্ট টহল ফাঁড়ির বনরক্ষী আব্দুর রহিম বলেন, গ্রামে বাঘ আসার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাঘের পায়ের ছাপ দেখেছি। আমরা পায়ের ছাপ পর্যবেক্ষণ করছি।

বন সুরক্ষায় নিয়োজিত সিপিজির (কমিউনিটি পেট্রোল গ্রুপ) সহসভাপতি শহীদুল ইসলাম সাচ্চু বলেন, ধারণা করছি, বুধবার রাতের কোনো এক সময় সুন্দরবন থেকে একটি বাঘ লোকালয়ে ঢুকেছে। আবু ভদ্রের বাড়ির দক্ষিণ পাশ দিয়ে বাঘটি গ্রামে ঢুকেছে। সকালে আব্দুল মালেক, আসলাম ভদ্র, হারুন ভদ্রের বাড়ির পুকুর পাড় ও বাগানে বাঘের একাধিক পায়ের ছাপ দেখেছি। পায়ের ছাপগুলো ভিন্ন আকৃতির।

মনে হচ্ছে, দু’টি বাঘ এসেছিল গ্রামে। আমরা পায়ের ছাপ থাকা এলাকা ও আশপাশে তল্লাশী করেছি। মনে হচ্ছে, বাঘ দু’টি আবার বনের মধ্যে চলে গেছে। হয়তো খাবারের সন্ধানে বা পথ ভুলে বাঘ দু’টি লোকালয়ে এসেছিল।

সুন্দরবন পূর্ব বনবিভাগের বিভাগীয় বনকর্মকর্তা মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, লোকালয়ে বাঘ আসার খবর পেয়ে আমাদের লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছে। এখনও পর্যন্ত লোকালয়ে তল্লাশী করে বাঘের সন্ধান পাওয়া যায়নি। ধারণা করছি, বাঘ বনে ফিরে গেছে। এছাড়া বনরক্ষীরা সোনাতলা গ্রামে পর্যবেক্ষণে আছেন। সতর্ক থাকতে সেখানে মাইকিং করা হচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker