জাতীয়

আদালত থেকে দুই জঙ্গি ছিনতাইয়ের মাস্টারমাইন্ড জিয়া

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পুলিশের মুখে স্প্রে ছিটিয়ে প্রকাশক দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনার মাস্টারমাইন্ড হলেন আনসার আল ইসলামের মূলহোতা মেজর (বরখাস্ত) সৈয়দ জিয়াউল হক।

সোমবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. হারুর অর রশিদ।

তিনি বলেন, জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তারা আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। আশা করছি খুব শিগগিরই তাদের গ্রেফতার করা হবে।

হারুন অর রশিদ বলেন, পুলিশ সদস্যদের প্রথম চারজনের মধ্যে দুজনের চোখে মুখে তারা (জঙ্গি) স্প্রে ছিটিয়ে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে আমরা রাজধানীর বিভিন্ন অলি-গলিতে বিভিন্ন ধরনের চেকপোস্ট স্থাপন করেছি এবং তল্লাশিও চলছে। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ওই মামলায় ২০ জনসহ অজ্ঞাতনামা আরও বেশ কয়েকজনকে আসামি করা হয়। কোর্টে ১২ জন আসামি আনা হয়েছিল। তাদের মধ্য থেকে দু’জনকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়, বাকি ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করে। সবকিছু মিলিয়ে তদন্ত চলছে।

তিনি বলেন, ঢাকাসহ সারাদেশে আমাদের পুলিশ মহাপরিদর্শক সতর্কতা জারি করেছেন। আমরা মনে করছি, আসামিরা আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। আশা করছি তাদের যেকোনো সময় আমরা গ্রেফতার করতে পারবো।

আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পুলিশের দায়-দায়িত্ব নিরূপণ করা হয়েছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ বলেন, পুলিশের যারা সেখানে দায়িত্বে ছিলেন, তাদের দায়িত্ব অবহেলাজনিত কারণে ডিএমপি কমিশনার এরই মধ্যে পাঁচ পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন পরিদর্শক, উপ-পরিদর্শক ও তিনজন কনস্টেবল রয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker