অর্থ বাণিজ্যব্যাংকিং

বাংলাদেশ ব্যাংকের ২৫ কেজি সোনা কিনতে পারবেন যারা

প্রায় ১৪ বছর পর আবার নিলামের মাধ্যমে ২৫ কেজি সোনা বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এসব সোনা কেনার নিলামে কারা অংশ নিতে পারবেন সে তথ্যসহ পুরো নিলাম প্রক্রিয়ার বিস্তারিত জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

নিলাম প্রক্রিয়া ১৪ থেকে ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের সোনা বিক্রির এই নিলাম প্রক্রিয়ায় সাধারণ জনগণ চাইলেই অংশ নিতে পারবেন না। শুধু তারাই অংশ নেবেন যাদের সনদ রয়েছে। অর্থাৎ শুধু সনদধারী অলঙ্কার ব্যবসায়ীরাই এই নিলামে অংশ নিতে পারবেন। নিলামে সোনা প্রদর্শনীর ব্যবস্থাও থাকবে। সোনার বাজার এবং জুয়েলারি ব্যবসায় স্বচ্ছতা ফেরাতে একটি বাণিজ্যিক ব্যাংকসহ ১৯টি প্রতিষ্ঠানকে সোনা আমদানির লাইসেন্স দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

একটা সময় স্থানীয় উদ্যোক্তাদের প্রধান উৎস ছিল বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টের সোনা। তবে এই নিলাম প্রক্রিয়া এখন আর সহজে হয় না।

নিলামে আগ্রহীদের দরপত্র জমা দিতে হবে এবং উদ্ধৃত মূল্যের আড়াই শতাংশ অর্থ বায়না জামানত হিসেবে জমা দিতে হবে। পরে সর্বোচ্চ দরদাতা প্রতিষ্ঠানকে সোনা ক্রয়ের কার্যাদেশ দেওয়ার পাঁচদিনের মধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংকে সব অর্থ জমা দিতে হবে।

এর আগে সর্বশেষ ২০০৮ সালে নিলামের (অকশন) মাধ্যমে ২০ কেজির বেশি সোনা বিক্রি করা হয়।

বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংকের অস্থায়ী খাতে প্রায় ২ হাজার ৯০০ কেজি সোনা রয়েছে। আর স্থায়ী খাতে রয়েছে ১৫৯ কেজি। স্থায়ী খাতের এ সোনা থেকে ২৫ কেজি বা ২ হাজার ১৭০ ভরি বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

জানা গেছে, অবৈধ কিংবা চোরাচালানের মাধ্যমে বিভিন্ন স্থান থেকে জব্দ করা সোনা বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে জমা থাকে। একই সময়ে এ নিয়ে চোরাকারবারি বা দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। মামলা নিষ্পত্তির পর রায় সরকারের পক্ষে গেলেই সেসব সোনা নিলামের মাধ্যমে বিক্রি করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker