রাজনীতি

আমি ‘কটাক্ষ’ করেছি, গণমাধ্যম ‘বিকৃত’ করেছে: আব্বাস

বিএনপির নেতা ইলিয়াস আলী নিখোঁজের বিষয়ে দেয়া বক্তব্য ‘কটাক্ষমূলক’ এবং গণমাধ্যমে সেই বক্তব্য ‘বিকৃত করা হয়েছে’ বলে অভিযোগ করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

শনিবারের এক ভার্চুয়াল আলোচনায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের উদ্ধৃতি দিয়ে রবিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা আব্বাস এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘সরকার ইলিয়াসকে গুম করেনি’ এই বক্তব্য সম্পর্কে জানতে চাইলে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমি বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য হয়ে কেন বলব যে,- আমি জানি সরকার জড়িত নয়। আমি কটাক্ষ করে বলেছি। ইট মিনস সরকারই বলুক ইলিয়াস আলী কোথায় আছে? সরকারকেই জবাব দিতে হবে। এই সরকারের সময়ে একজন জলজ্যান্ত ইলিয়াস, একজন তরতাজা ইলিয়াস, সত্যভাষী একজন ইলিয়াস গুম হয়ে যাবে? সরকার জানে না। তাহলে কে করলো গুম? আমি এটা বলতে চেয়েছি। আর আমার বক্তব্য গণমাধ্যমে ‘বিকৃত করা হয়েছে’।’

তিনি বলেন, ‘একটি পত্রিকায় ছাপা হয়েছে- ‘ইলিয়াস আলী গুমের জন্য বিএনপির কিছু নেতা দায়ী’। এই কথা কি আমি বলেছি- কেউ কি প্রমাণ করতে পারবে। অসম্ভব, সম্ভব নয়। আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই- আমরা কথা বিকৃত করা হয়েছে।’

‘পত্রিকায় এসেছে- সরকার বা আওয়ামী লীগ ইলিয়াসকে গুম করে নাই্- এই কথাও আমি বলি নাই। আমার বক্তব্যকে বিকৃত করে পেঁচিয়ে লেখা হয়েছে, টুইয়িস্ট করা হয়েছে। বিএনপির নেতারাই ইলিয়াস আলীকে গুম করেছে- আমি বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য হয়ে আমার পক্ষে এই কথাটা কি বলা সম্ভব? মানে নিজের মাথায় নিজের বোমা ফাটানো- এটা সম্ভব না। এখানেও টুইয়িস্ট করা হয়েছে’- বলেন আব্বাস।

উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার সিলেট বিভাগ জাতীয়তাবাদী সংহতি সম্মেলনীর উদ্যোগে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় যুক্ত হয়ে মির্জা আব্বাস ইলিয়াস আলী গুমের সাথে আওয়ামী লীগ বা সরকার জড়িত নয় বলে মন্তব্য করেন এবং ‘গুমের’ পেছনে দলের কারও সংশ্লিষ্টতার ইঙ্গিত দেন।

তিনি বলেন, ‘ইলিয়াস গুম হওয়ার আগের রাতে দলীয় অফিসে কোনও এক ব্যক্তির সঙ্গে তার মারাত্মক রকমের বাকবিতণ্ড হয়। ইলিয়াস তাদের খুব গালিগালাজ করেছিলো। সেই যে পেছন থেকে দংশন করা সাপগুলো আমাদের দলে এখনও রয়ে গেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমি পরিষ্কারে করে একটা কথা বলতে চাই, আমার সহজ-সরল পরিষ্কার মনের সরল উক্তিগুলোকে বিকৃত করে আমাদের যে সকল সাংবাদিক ভাই্য়েরা যার যেখানে প্রয়োজন, আমার সম্পূর্ণ বক্তব্য যদি বলি তার একটা লাইন কোড করে, যার যেখানে দিয়ে প্রয়োজন কেটে-ছিঁড়ে, পোস্ট মর্টেম করে, কাটপিস করে ইচ্ছামতো লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। কী কারণে করা হয়েছে তা আমি জানি না।’

‘আজকে সকালে ইলিয়াস আলীর বাসায় গিয়েছে একদল সাংবাদিক। তার স্ত্রীকে গিয়ে রীতিমতো চার্জ করেছে, বিভিন্ন প্রশ্ন করে হেনস্তা করার চেষ্টা করা হয়েছে। এটাই বা কেন? কী এমন ঘটনা ঘটলো যে, এ বিষয়টা নিয়ে এতো মাথা ঘামাতে হবে?’

মির্জা আব্বাস সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘গত ৯টি বছর ইলিয়াস গুম হওয়ার পরে কোনও পত্র-পত্রিকায় একটি দিবস পালন করে নাই। সেই ইলিয়াস আলীর জন্য আজকে কেন সাংবাদিকদের মাথা খারাপ হয়ে গেলো? আমি কোনও সাংবাদিককে দোষারোপ করছি না।’

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘দয়া করে সত্য বক্তব্যটা যদি তুলে ধরতেন তাহলে ভালো হতো। আমি এমন কোনও কথা বলি নাই যার জন্য জাতির কাছে, দেশের কাছে, বিএনপির কাছে কিংবা আমার নেতাকর্মীর কাছে আমাকে বিব্রত হতে হবে। আমার বক্তব্য গতকাল যারা শুনেছেন তারা হয়ত বুঝে উঠতে পারেন নাই। আমি দুঃখিত যে, আমি বুঝাতে পারি নাই।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected