বিশ্ব

মিয়ানমারে বাস থামিয়ে যাত্রীদের নির্যাতন

মিয়ানমারে অভ্যুত্থান পরবর্তী বিক্ষোভে মৃত্যু ছাড়িয়েছে সাড়ে পাঁচশ’। এরপরও বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে নিপীড়ন বেড়েই চলেছে। এবার দেশটির সেনাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের ছাড়াও সাধারণ মানুষকে বাস থেকে নামিয়ে অত্যাচার শুরু করেছে। শুক্রবার থেকে গত কয়েকদিনে ইয়াঙ্গুনের ওক্কালাপা সহ বেশ কয়েকটি শহরে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। খবর ইরাবতী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সামরিক বাহিনী বাস থামিয়ে বলপূর্বক যাত্রীদের টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে লাঠি দিয়ে অমানবিকভাবে আঘাত করেছে এবং প্রবলভাবে লাথির পর লাথি মেরেছে। উত্তর ওক্কালাপা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক থুধামায় চলতে থাকা ইয়াঙ্গুন বাস সার্ভিসের গাড়িগুলোকে সিগন্যাল দিয়ে রাস্তার পাশে থামানো হয়। এরপর সেনা সদস্যরা বাসের ভেতরে ঢুকে যাত্রীদের ধরে ধরে জোরপূর্বক টেনে নিচে নামায়।

তারা আরও জানিয়েছেন, যাত্রীদেরকে ‘নিলডাউন’ করতে বলা হয়, এর পরই শুরু হয় অত্যাচার। শুধু যাত্রীদের পিটিয়েই ওরা ক্ষান্ত হচ্ছে না, বাসের চালকসহ অন্য কর্মীদেরও তারা এই অত্যাচার নির্যাতন থেকে রেহাই দিচ্ছে না। এ ঘটনার পর থেকে খবর পেয়েই ওই বাসগুলো গন্তব্যে যেতে অন্য রাস্তা ব্যবহার করতে শুরু করে। চালকদের রুট পরিবর্তনের খবর পেয়ে সেনা সদস্যরা আবাসিক এলাকাগুলোতে চিৎকার করতে করতে গুলি চালাতে থাকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close