বিশ্ব

জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশের গুলিতে নিহত ১৮

সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশের গুলিতে একদিনেই নিহত বেড়ে ১৮ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জন।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দেশটির ইয়াঙ্গুন, দাওয়েই ও মান্দালয় শহরে এসব হতাহতের ঘটনা ঘটে। খবর রয়টার্স, আলজাজিরা।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে মিয়ানমারে তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে চলছে প্রতিবাদ। তা বন্ধে দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়েছে পুলিশ। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর দাউই ও প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনে পুলিশ গুলি করে ১৮ জনকে হত্যা ও বেশ কয়েকজনকে আহত করেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন স্থানীয় রাজনীতিক কিয়াও মিন হটিক।

স্থানীয় গণমাধ্যম দাউই ওয়াচের প্রতিবেদনেও ১৮ ব্যক্তি নিহত এক ডজনেরও বেশি লোক আহত হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। পুলিশ ও ক্ষমতাসীন সামরিক কাউন্সিলের মুখপাত্রের মন্তব্য নেওয়ার জন্য ফোন করা হলেও কেউ সাড়া দেয়নি বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

গণমাধ্যমের পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, মিয়ানমারের বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনে কয়েকজন লোককে ধরাধরি করে প্রতিবাদ থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে, তাদের কয়েকজনের দেহ রক্তাক্ত। তারা কীভাবে আঘাত পেয়েছেন তা পরিষ্কার না হলেও গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে তাজা গুলির কথা বলা হয়েছে।

মিয়ানমার নাও গণমাধ্যম গোষ্ঠী জানিয়েছে, লোকজনকে ‘গুলি করা’ হচ্ছে; কিন্তু বিস্তারিত আর কিছু জানায়নি তারা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, পুলিশ স্টান গ্রেনেড ও কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করছে এবং ফাঁকা গুলি ছুড়ছে।

নভেম্বরের সাধারণ নির্বাচনে অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) ব্যাপক জয় পায়। তার স্বীকৃতি না দিয়ে সেনাবাহিনী নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে ১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখল করে। নির্বাচিত নেত্রী সু চি ও এনএলডির অধিকাংশ নেতাকে গ্রেফতার করে কারবন্দি করে রাখে। এর পর থেকেই মিয়ানমারজুড়ে অস্থিরতা চলছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close