বাণিজ্য

সমুদ্রবন্দরে প্রথম জাহাজ ভিড়বে জানুয়ারিতে

দেশের প্রথম গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মিত হচ্ছে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ীতে। ২০২৬ সালে পুরোদমে চালু হবে এই সমুদ্রবন্দরটি। কিন্তু তার আগেই নির্মিতব্য বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য তিনটি জেটি এবং জাহাজ প্রবেশের জন্য ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ চ্যানেল বা পথ ডিসেম্বরের মধ্যেই বুঝে পাচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। আর ওই চ্যানেল দিয়ে ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে ভিড়ছে প্রথম জাহাজ।

জানা গেছে, মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার ৭৭৭ কোটি ১৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে জাপানের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগিতা সংস্থা (জাইকা) বৈদেশিক ঋণ সহায়তা করবে ১২ হাজার ৮৯২ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারের তহবিল থেকে ২ হাজার ৬৭১ কোটি ১৫ লাখ। পাশাপাশি সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে পাওয়া যাবে ২ হাজার ২১৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা। জানুয়ারি ২০২০ থেকে ডিসেম্বর ২০২৬ মেয়াদে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগ যৌথভাবে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।

প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, মাতারবাড়ী সমুদ্রবন্দরে ৩০০ ও ৪৬০ মিটার দৈর্ঘ্যের দুটি টার্মিনাল থাকবে। এর একটি হবে বহুমুখী টার্মিনাল ও অপরটি কন্টেইনার টার্মিনাল। এছাড়া, বন্দরের সঙ্গে সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হবে। একসঙ্গে ৮ হাজার কন্টেইনারবাহী জাহাজ বন্দরে ভিড়তে পারবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close