জাতীয়

শেষ পর্যন্ত সমঝোতা, কাল থেকে মাঠে ফিরছেন সাকিবরা।

শেষ পর্যন্ত সমঝোতা হলো। ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে বৈঠক শেষে আন্দোলন স্থগিত করে মাঠে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্রিকেটাররা। বিসিবি কার্যালয়ে আলোচনা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। একই সঙ্গে শনিবার থেকে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরার বিষয়টিও নিশ্চিত করেছেন তিনি।
রাত সাড়ে ৯টার পর শুরু হয় বৈঠক। গুলশান থেকে মিরপুরে অবস্থিত বিসিবি কার্যালয়ে বোর্ডের সঙ্গে এই আলোচনায় যোগ দেন সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, ইমরুল কায়েসসহ সিনিয়র ক্রিকেটাররা।
সাকিব আল হাসানও জানিয়েছেন, বোর্ডের প্রতিশ্রুতিতেই জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা ভারত সফর সামনে রেখে ২৫ অক্টোবর ক্যাম্পে যোগ দেবেন। আর ঘরোয়া লিগের ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরবেন শনিবার থেকে।
এর আগে গুলশানে সংবাদ সম্মেলন শেষে নিজেদের মধ্যে আলোচনার পর বিসিবিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন আন্দোলনে থাকা ক্রিকেটাররা।
গুলশানের সংবাদ সম্মেলনে ১৩ দফা দাবি জনায় ক্রিকেটাররা। তাদের মুখপাত্র হিসেবে দাবিগুলো উপস্থাপন করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। তাদের দাবিগুলোর মধ্যে ছিলো- ১. ক্রিকেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কোয়াবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কর্মকর্তাদের পদত্যাগ করতে হবে।
২. ঢাকা লীগের দলবদল পুরোনো পদ্ধতিতে হতে হবে, ৩. এ বছর না হলেও পরের বছর থেকে আগের মতো বিপিএল আয়োজন করতে হবে। স্থানীয় ক্রিকেটারদের ভিত্তিমূল্য বাড়াতে হবে।
৪. প্রথম শ্রেণির ম্যাচ ফি ১ লাখ করতে হবে। গোটা বছর কোচ-ফিজিও দিতে হবে। জাতীয় ক্রিকেট লিগে প্রতি বিভাগে অনুশীলনের ব্যবস্থা করতে হবে। ৫. ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো মানের বল দিতে হবে। ডিএ ১৫০০ টাকায় কিছু হয় না, তাই বাড়াতে হবে। ট্রাভেলে বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে এবং ভালো মানের হোটেল হতে হবে। ৬. চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারের সংখ্যা ও বেতন বাড়াতে হবে। ৭. দেশি সব স্টাফের বেতন বাড়াতে হবে। কোচ থেকে গ্রাউন্ডস ও আম্পায়ার, সবার বেতন বাড়াতে হবে। ৮. ঘরোয়া ওয়ানডে বাড়াতে হবে। বিপিএলের আগে আরেকটি টি-টোয়েন্টির টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে হবে। ৯. ঘরোয়া ক্যালেন্ডার নির্দিষ্ট করতে হবে। ১০. বিপিএলের পাওনা টাকা সময়ের মধ্যে দিতে হবে।
১১. ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ দুটোর বেশি খেলা যাবে না, এই নিয়ম তুলে দিতে হবে। সুযোগ থাকলে সবাই খেলবে। ১২. ক্রিকেটের ব্যবস্থপনায় আমরা স্বচ্ছতা চাই। এর একটা ভাগ আমরা চাই।
১৩. বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল ভালো করছে। নারীদের ক্ষেত্রেও তাদের ন্যায্য হিসাব দিতে হবে।
সমঝোতার ফলে আসন্ন ভারত সফর নিয়ে সব শঙ্কা দুর হলো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker